ইসলামিক বার্তামতামত

ওয়াজ মাহফিলে বাধা দেওয়ার মূল কারণ আলোচনায় আসা

ওয়াজ মাহফিলে বাধা দেওয়ার মূল কারণ আলোচনায় আসা: দেশের বিভিন্ন স্থানে বিভিন্ন সময় দেখা যায় ইসলামী বক্তাদের মাহফিলে সরাসরি বাধা দেওয়া হয় অথবা তাদের উপর সরাসরি আক্রমণ করা হয়। 

এ বিষয়টি অত্যন্ত দুঃখজনক হলেও বর্তমান সময়ে একটি আলোচনার কেন্দ্রবিন্দু হয়ে দাঁড়িয়েছে। মাহফিলে বক্তাগণ তাদের ইচ্ছা অনুযায়ী যে কোন বক্তব্য প্রদান করতে গেলে কোন তিথিতে দেখা যায় সে এসে হত্যার পথ হেটে যায় বা আক্রমণ করে। 

এই সংক্রান্ত বিভিন্ন ভিডিও ইউটিউব এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হতে দেখা যায়। প্রশাসনের কোন প্রকার তৎপরতা লক্ষ্য করা যায় না এটা ফেসবুক এবং ইউটিউব এর মধ্যে সীমাবদ্ধ থেকেছে। 

মুসলমানদের ওয়াজ মাহফিলে বাধা দেওয়ার পর সেই দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে কোন প্রকার আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার কোন নজীর পাওয়া যায় নি। 

কোন প্রকার শাস্তির ব্যবস্থা না থাকায় দেশের বিভিন্ন প্রান্তে নাম না জানা অজানা ব্যক্তিগণ হঠাৎ করেই মাহফিল সমূহ এবং তাদের ওপর আক্রমণ করে বসে। 

এতে বক্তারা না যতটা অপমানিত হয় তারচেয়ে সেই আক্রমণ কারী ব্যক্তি বেশি আলোচিত ও পরিচিত হয়। কিছু মানুষ আছে ইউটিউব এবং ফেসবুকের ভিডিও ভিউ পাওয়ার জন্য বা ভাইরাল হওয়ার জন্য এই ধরনের ভিডিও কে আরো রস মিশিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রকাশ করা হয়। 

এতে ঘটনার সৃষ্টিকারী একটি সামরিক কিছুটা বিপাকে পড়লেও তার পরিচিতি হয়ে যায় দেশব্যাপী। তাই প্রচারণায় আসার জন্য দেশের ধর্মীয় ওয়াজ মাহফিল গুলোতে তাদের উপর হঠাৎ করেই বিনা কারণে আক্রমণ করতে দেখা যায়। 

এই তথ্যটি আপনার ভাল লাগলে অবশ্যই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে আপনার বন্ধুদের শেয়ার করে জানিয়ে দিন। 

আপনি আরও পছন্দ করতে পারেন-

সমাজের চলমান কোনো অসঙ্গতি, সাহিত্য, সংস্কৃতি ও রাজনীতি নিয়ে আপনার মতামত, সৃজনশীল লেখনি সাহসী বার্তা ডটকমের প্রকাশ করতে চাইলে আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন। 

গুরুত্বপূর্ণ বিভিন্ন বিষয়ে সঠিক তথ্য জানতে চাই আমাদের ফেসবুক পেইজ টি লাইক এবং ফলো করে রাখুন এবং ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করে রাখুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *