ইসলামিক বার্তা

২৯ বছর গবেষণা করে মুসলিম হলেন জবি সহকারী অধ্যাপিকা ঋতু

২৯ বছর গবেষণা করে মুসলিম হলেন জবি সহকারী অধ্যাপিকা ঋতু: কম্পারেটিভ রিলিজিয়ান বা তুলনামূলক ধর্মতত্ত্ব নিয়ে সুদীর্ঘ ২৯ বছর টানা গবেষণা করে মুসলমান ধর্ম গ্রহণ করেছেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী অধ্যাপিকা ঋতু কুন্ডু।

তিনি জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের লোক প্রশাসন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক হিসেবে কর্মরত আছেন।
বিভিন্ন ধর্ম নিয়ে গবেষণার পর তিনি ইসলাম ধর্মে দীক্ষিত হয়েছেন চার বছর আগে কিন্তু এর আগে এই বিষয়টি জানাজানি হয় নি।

কয়েকদিন আগে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি ভিডিও আপলোড করে এই অধ্যাপিকা তার ইসলাম ধর্ম গ্রহণের ব্যাপারে সকলকে জানান দেয়।

ভিডিওবার্তায় তিনি ২৯ বছর বিভিন্ন ধর্ম নিয়ে পড়াশোনা করে বিভিন্ন তথ্যের আলোকে একমাসব্যাপী পড়াশোনা করে ইসলাম ধর্ম গ্রহণের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেন বলে জানান।

রিতু কুন্ডু ধর্মান্তরিত হয়ে নিজের নাম পরিবর্তন করে আদ্রিতা জাহান রিতু রেখেছেন।

পরিবার ও বন্ধু-বান্ধবের বিরোধিতা সত্ত্বেও তিনি ইসলাম ধর্ম গ্রহণের সিদ্ধান্তে অবিচল ছিলেন বলেও জানান এ শিক্ষিকা।

বলেন, ‘আমার পরিবার ও বন্ধুরা আমাকে এমনটি করতে মানা করে। কিন্তু আমি তাদেরকে বলি, আমি রাসুল (সা.)-কে ভালোবাসতে পেরেছি।

আমি বুঝতে পেরেছি, তিনি কেন আমাদের এত সুন্দর সুন্দর উপদেশ ও নির্দেশনা দিয়েছেন। আজ থেকে আল্লাহর কাছে আত্মসমর্পন করলাম।’

তার প্রকাশিত ভিডিওবার্তায় তিনি যা বলেন তা আপনাদের জন্য হুবহু তুলে ধরা হলো-

আমি তিনটা জিনিসকে ব্যবহার করে ইসলাম ধর্মে এসেছি। ২৯ বছর পর্যন্ত আমি আমার বিবেক তাকে কাজে লাগিয়েছি। ২৯ বছর ধরে আমি আমার পরিবার সমাজ এবং আশপাশের মানুষের আচরণগুলোকে পর্যবেক্ষণ করেছি।

এই সময়ে আমি অন্যান্য ধর্মগ্রন্থ গুলো পড়েছি এবং হিন্দু ধর্মে জীবন যাপন করেছি। প্রথম আমি হিন্দু ধর্মের ধর্মগ্রন্থ গুলো পড়া শুরু করলাম এরপর বাইবেল পড়লাম।

বিভিন্ন ধর্মগ্রন্থের পড়ার পর ২০১২ সালে আমি এই ডিসিশনে আসলাম যে এই সকল বই মানুষের নিজের লেখা। যেহেতু এগুলো মানুষের লেখা বই সেতু এগুলো সম্পর্কে আমি একটা ডিসিশনে আসতে পারলাম।

২০১২ সালের পড়ে এসে আমি আমার চারপাশের অন্যান্য জ্ঞানগুলো অর্জন করার চেষ্টা করলাম। 29 বছর পর এসে আমি প্রথম আল-কোরআন এর বাংলা অনুবাদ পড়লাম।

বিস্তারিত ভিডিওতে দেখুন

আপনি আরও পছন্দ করতে পারেন-

ফেসবুকে নিয়মিত আমাদের ওয়েবসাইটের আপডেট পেতে ফেসবুক পেইজ টি লাইক এবং ফলো করে রাখুন এবং ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *